করোনায় আর্থিক সংকটে পড়া আইনজীবীদের ৪ কোটি টাকার অনুদান, সরকারি ত্রাণ তহবিলে ১ কোটি

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ২ মে, ২০২০ ৯:৫৬ অপরাহ্ণ
বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের লোগো

করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে আদালত বন্ধ। করোনাকালে আর্থিক সংকটে পড়া আইনজীবীদের মধ্যে যারা অর্থ সহায়তা পেতে আগ্রহী তাদের সংকটে এগিয়ে এসেছেন আইনজীবীদের একমাত্র নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ বার কাউন্সিল। সম্প্রতি এক ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বার কাউন্সিলের এক্সিকিউটিভ কমিটির এক জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। এই নিয়ে বিস্তারিত জানতে বার কাউন্সিলের এক্সিকিউটিভ কমিটির সদস্য ও লিগ্যাল এডুকেশন কমিটির চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের আইন সম্পাদক কাজী নজিব উল্লাহ্‌ হিরুর সাথে ফোনে যোগাযোগ করেন ল’ইয়ার্স ক্লাব বাংলাদেশ ডট কম সম্পাদক অ্যাডভোকেট বদরুল হাসান কচি।  

তিনি জানান, বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান সিনিয়র আইনজীবী ইউসুফ হোসেন হুমায়ূন সহ কমিটির সকল সদস্যের সিদ্ধান্তে করোনার সংকট মোকাবেলায় আমরা বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের পক্ষ থেকে আলোচনা করে একটি বাজেট পেশ করেছি। সে অর্থ থেকে করোনাকালে সারাদেশে আর্থিক সংকটে পড়া আইনজীবীদের মধ্যে যারা অর্থ সহায়তা পেতে আগ্রহী তাদের জন্য এককালীন ৪ কোটি টাকা এবং দেশের গরিব অসহায় মানুষদের সহায়তার জন্য প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে এক কোটি টাকা আর্থিক অনুদান দেয়া হবে।

কাজী নজিব উল্লাহ্‌ হিরু বলেন, বার কাউন্সিলে ভেলোবেন্ড ফান্ডের টাকা ভাঙার কোন সুযোগ নেই। শুধুমাত্র দেশের প্রতিটি বারে ওকালতনামার সাথে ২০ টাকার মতো স্ট্যাম্প লাগিয়ে যে টাকা টা পাওয়া যায় সেটাই মূলত কাউন্সিলের আয়। সারাদেশে সমিতিগুলোর কাছে বার কাউন্সিলের প্রায় ৪ কোটি ৮০ লাখ টাকার মতো পাওনা আছে, এরমধ্যে শুধু ঢাকা আইনজীবী সমিতির কাছে পাওনা প্রায় কোটি টাকা। আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি এই পাওনা অর্থ থেকে সমন্বয় করে করোনাকালে আর্থিক সংকটে পড়া আইনজীবীদের মধ্যে যারা অর্থ সহায়তা পেতে আগ্রহী তাদেরকে এককালীন (সম্পূর্ণ অফেরতযোগ্য) হিসেবে বণ্টন করা হবে। সমিতি থেকে যাদেরকে অনুদান দেয়া হবে সেই তালিকা বার কাউন্সিলের কাছে পাঠিয়ে দিতে হবে, আমরা সেটা অনুমোদন করে দিব।

তিনি আরও বলেন, যেহেতু ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে তাই কাউন্সিল থেকে এখন রেজুলেশন করার প্রক্রিয়া চলছে, তারপর সিদ্ধান্তটি বিজ্ঞপ্তি আকারে প্রকাশ করা হবে।

আওয়ামী লীগের আইন সম্পাদক কাজী নজিব উল্লাহ্‌ হিরু বলেন, আমরা আইনজীবী সমাজ অতীতে দেশের বিভিন্ন দুর্যোগে সরকারের পাশে দাঁড়িয়েছি। তাই আমরা এবারও সিদ্ধান্ত নিয়েছি, দেশের গরিব অসহায় মানুষদের সহায়তার জন্য প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে এক কোটি টাকা আর্থিক অনুদান দিবে বার কাউন্সিল।