ফরিদপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটকে হাইকোর্টে তলব

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ৪:৩১ অপরাহ্ণ
সর্বোচ্চ আদালত

ফরিদপুরের নগরকান্দায় স্কুলছাত্র অন্তর হত্যা মামলার বিচারে আইনের বিধিবিধানে ব্যত্যয় ঘটিয়ে আসামিদের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি গ্রহণ করায় জেলার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাইনুল ইসলামকে তলব করেছেন হাইকোর্ট।

ওই মামলার দুই আসামির জামিন নামঞ্জুরের বিরুদ্ধে আপিল আবেদনের শুনানিকালে বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদালতে আসামিদের জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল ও অ্যাডভোকেট নুসরাত ইয়াসমিন।

জামিন শুনানিতে ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল আদালতকে বলেন, ২০১৮ সালের ২৮ জুন একদিনের মধ্যেই ফরিদপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আসামিদের জবানবন্দি গ্রহণ করেন। তিন আসামির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রায় একইরকম। যা আইন অনুযায়ী হয়নি।

পরে আদালত এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দেওয়ার জন্য ফরিদপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাইনুল ইসলামকে তলব করেন। আগামী ৮ অক্টোবর তাঁকে আদালতে হাজির হয়ে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে। একইসঙ্গে আসামিদের আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ করেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ৭ জুন রাতে অপহরণের পর ওই রাতেই গলায় গামছা পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে অন্তরকে হত্যা করা হয়। পরে ওই ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলার দুই আসামি আজিজুল শেখ ও আশরাফ শেখ ফরিদপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে জামিন আবেদন করলে আদালত তা নামঞ্জুর করেন। ট্রাইব্যুনালের এই আদেশের বিরুদ্ধে দুই আসামি হাইকোর্টে জামিন চেয়ে আবেদন জানান।