সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আসক্ত নয় এমন পাত্রী চেয়ে আইনজীবীর বিজ্ঞাপন

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ৬ অক্টোবর, ২০২০ ৩:৩৬ অপরাহ্ণ
আইনজীবী (প্রতীকী ছবি)

সাধারণত দেখা যায়, পত্রিকায় পাত্রী চেয়ে বেশিরভাগ অভিভাবক ও পাত্র বিজ্ঞাপন দেন- ফর্সা, সুন্দরী, স্লিম ও শিক্ষিতা হতে হবে। এরপরেও আবদারের শেষ থাকে না। হয়তো যোগাযোগ করলেই পাত্রপক্ষ থেকে শুরু হয় আরও দাবি-দাওয়া। তবে কেউ কেউ এমন আবদার করে বসেন যে, সেগুলো নিয়ে ট্রল শুরু হয়ে যায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

পত্রিকায় বিয়ের বিজ্ঞাপন বিভাগের তেমনই একটি আবদার করে পাত্রী চেয়ে বিজ্ঞাপন দিয়েছেন ভারতের এক আইনজীবী। বিজ্ঞাপনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আসক্ত নয় এমন পাত্রী চেয়েছেন ওই আইনজীবী।

বিজ্ঞাপনের ক্লিপটি কেটে টুইটারে সেটি পোস্ট করেছেন আইপিএস অফিসার নিতীন সাংওয়ান। যেখানে ক্লিপে বিস্তারিত দেওয়া রয়েছে- পাত্রীকে হতে হবে সুন্দরী, ফর্সা, শিক্ষিতা ও স্লিম। তার পরের লাইনেই বিশেষভাবে উল্লেখ করা হয়েছে, পাত্রীর যেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের প্রতি আসক্তি না থাকে!

এই সময়ের খবরে বলা হয়, সেই পোস্টে ওই আইপিএস অফিসার লিখেছেন ‘সম্ভাব্য কনে ও হবু বরেরা দয়া করে মনোযোগ দিয়ে পড়ুন। ম্যাচমেকিংয়ের মানদণ্ড এবার পরিবর্তন ঘটছে।’

অবশ্য ওই টুইটারটি ভাইরাল হতে বেশিক্ষণ সময় লাগেনি। অনেকেই লিখেছেন, ওই ব্যক্তি সারাজীবন কুমারই থেকে যাবেন!

এমন বিজ্ঞাপন তো সংবাদপত্রের পাতায় দেখা যায়ই। তবে এটি অভিনব। একজন কটাক্ষের সুরে লিখেছেন- এটা কি মলে উইন্ডো শপিংয়ের জন্য ম্যানিকুইনের অ্যাড চলছে?

একজন মজা করে লিখেছেন, এইজন্যই তিনি ৩৭ বছরে এসেও ব্যাচেলর! আবার একজন লিখেছেন, এমন পাত্রী খুঁজে পাওয়া কঠিন, তবে তিনি খোঁজ চালিয়ে যেতে পারেন।