অপরাধ নিয়ন্ত্রণ ও সামাজিক সচেতনতা: চাই স্বচ্ছ ভাবনা ও বাস্তবায়নের সদিচ্ছা

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ১৭ অক্টোবর, ২০২০ ৫:৫৭ অপরাহ্ণ
মোঃ জাহাঙ্গীর আলম

মোঃ জাহাঙ্গীর আলম: সমাজবিজ্ঞানীরা হয়তো ভালো ব্যাখ্যা দিতে পারবেন। তারপরও আমার উপলব্ধি হলো ব্যাপক সামাজিক সচেতনতা অপরাধ কার্যক্রম বিস্তার অনেকাংশে নিরুৎসাহিত করতে পারে। কিন্তু আমার মনে হয়, আমরা এখনো অনেকখানি পিছিয়ে আছি দেশের প্রচলিত আইন, বিধিবিধান ও যুগোপযোগী সিদ্ধান্তসমূহ সহজভাবে জনগণের কাছে পৌঁছে দিতে।

কারণ নিভৃত গ্রাম, ইউনিয়ন, উপজেলা ও জেলার সাধারণ মানুষসহ সকল সরকারি-কর্মচারীর কত শতাংশ মানুষ দেশের প্রচলিত আইনকানুন, বিধিবিধান ও সামাজিক মূল্যবোধ সম্পর্কে সম্যক ধারণা রাখে? দেশের কত শতাংশ মানুষ অপরাধ ও অপরাধের ধরণ অনুযায়ী শাস্তি ও এর প্রভাব সম্পর্কে ন্যূনতম ধারণা রাখে? তাহলে সাধারণ মানুষসহ আমরা কিভাবে সচেতন হবো? তাহলে অপরাধ কমবে কীভাবে? সামাজিক মূল্যবোধ সৃষ্টি হবে কীভাবে?

তাই সমাজের প্রতিটি স্তরে ব্যাপকভাবে সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা জরুরি। টেকসই সামাজিক মূল্যবোধ সৃষ্টি ও বৃদ্ধিতে ঘর থেকে শুরু করে রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ স্তর পর্যন্ত নিবিড় পরিচর্যা ও পরিমিতবোধের সঞ্চার জরুরি।

সামাজিক অস্থিরতা, মূল্যবোধের অবক্ষয় ও সামাজিক সচেতনতার অভাব মানসিক নিপীড়ন বাড়িয়ে কর্মস্পৃহা কমিয়ে দেয়। ফলে অপরাধের মাত্রা ক্রমেই বিস্তার লাভ করে। অপরাধ নিয়ন্ত্রণ ও ব্যাপক সামাজিক সচেতনতার জন্য চাই স্বচ্ছ ভাবনা ও বাস্তবায়নের সদিচ্ছা।

মোঃ জাহাঙ্গীর আলম: অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার, ডিএমপি