চট্টগ্রামে ভোট কেন্দ্রে ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়িতে ককটেল হামলা

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ২০ অক্টোবর, ২০২০ ৬:১৩ অপরাহ্ণ
ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন

চট্টগ্রামের লোহাগাড়া সদর উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে অনিয়মের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গেলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়িতে ককটেল হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়িচালক গুরুতর আহত হন।

আজ মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) দুপুরে সদর ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের নজিবুন্নেসা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভোটকেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নজিবুন্নেসা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কেন্দ্র দখল করে জাল ভোট দেয়ার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিলুফা ইয়াসমিন চৌধুরী। এ সময় তার গাড়ি লক্ষ্য করে পরপর দুটি ককটেল নিক্ষেপ করে দুর্বৃত্তরা। এতে গাড়িচালক মো. শাহেদ (৩০) গুরুতর আহত হন।

হামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে ম্যাজিস্ট্রেট নিলুফা ইয়াসমিন চৌধুরী গণমাধ্যমকে বলেন, ‘নজিবুন্নেসা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে অনিয়মের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। এ সময় আমার গাড়ি লক্ষ্য করে পরপর দুটি ককটেল নিক্ষেপ করে দুর্বৃত্তরা। হামলায় আমি অক্ষত থাকলেও চালক গুরুতর আহত হন।’

এদিকে আমিরাবাদ ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের উত্তর আমিরাবাদ বিদ্যালয়ের ভোটকেন্দ্র পরিদর্শনে গেলে ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ ইনামুল হাসানের গাড়ি লক্ষ্য করেও ককটেল হামলা চালানো হয়। যদিও এতে কেউ হতাহত হননি।

এছাড়া লোহাগাড়া উপজেলার আমিরাবাদ ১নং ওয়ার্ডের আমিরাবাদ সুফিয়া আলিয়া মাদরাসার কেন্দ্রে চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকরা সংঘর্ষে জড়ালে দুজন আহত হন। এ সময় ভোটগ্রহণ সাময়িক স্থগিত করা হয়।

এদিকে ফটিকছড়ি উপজেলার সুয়াবিল ইউনিয়নের শোভনছড়ি জেএমসি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভোটকেন্দ্রে সংঘর্ষের ঘটনায় তিনজন আহত হন। তাদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতরা হলেন- মো. আলী আকবর (৫০), মো. এমাজউদ্দিন (৩২) ও মো. জীহাদ (২০)। এদের মধ্যে আলী আকবর ও এমাজউদ্দিনের অবস্থা গুরুতর।

চট্টগ্রামের ছয়টি উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন পরিষদের সাধারণ ও উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) সকাল ৯টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। শেষ হয় বিকেল ৫টায়।