আইনজীবী ভবনে বাল্যবিয়ের প্রস্তুতি, প্রশাসনের অভিযানে পণ্ড

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ২৬ জানুয়ারি, ২০২১ ৪:১৫ অপরাহ্ণ
ভ্রাম্যমাণ আদালত

মানিকগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির ভবনে বাল্যবিবাহের খবর পেয়ে অভিযান চালিয়েছে প্রশাসন। এ সময় ওই বিয়ে বন্ধ করে দেওয়ার পাশাপাশি ভ্রাম্যমাণ আদালতে বরের মামাকে ৬ মাসের কারাদণ্ড এবং কনের বোনকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (এসি ল্যান্ড) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আলী রাজীব মাহমুদ গত রোববার (২৪ জনুয়ারি) এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

সহকারী কমিশনার আলী রাজীব মাহমুদ বলেন, গোপন সূত্রের মাধ্যমে গত শনিবার (২৩ জানুয়ারি) তিনি জানতে পারেন, জেলা আইনজীবী সমিতির ভবনের একটি কক্ষে জেলার সিঙ্গাইর উপজেলার দশম শ্রেণির এক ছাত্রীর বাল্যবিবাহ হওয়ার কথা। এই খবরে রোববার সকাল থেকেই তিনি আশপাশে খবর রাখার জন্য একজনকে দায়িত্ব দেন। সকাল ১০টার দিকে ওই লোকের খবর পেয়ে তিনি সেখানে যান। এ সময় বর, কনেসহ উভয় পক্ষের দুজনকে সেখানে দেখতে পান। এরপর ওই ছাত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে জানায় তাকে জোর করে বিবাহ দেওয়া হচ্ছে।

এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার মাধ্যমে বাল্যবিবাহ বন্ধ করা হয়। পাশাপাশি বরের মামা জাকির হোসেনকে ৬ মাসের কারাদণ্ডাদেশ এবং কনের বোনকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

আলী রাজীব মাহমুদ বলেন, কনে ও বরপক্ষের জিজ্ঞাসাবাদে কোনো আইনজীবীর নাম ও পরিচয় জানা যায়নি। অর্থদণ্ডপ্রাপ্ত ওই নারী ৩০ হাজার টাকা জরিমানা দিয়েছেন। প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত ওই ছাত্রী বিয়ে দেবেন না মর্মেও মুচলেকা নেওয়া হয়েছে। কারাদণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তিকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সূত্র- প্রথম আলো