নিঃশর্ত ক্ষমা অপরাধ থেকে মুক্তি, নাকি শাস্তি থেকে মুক্তি?

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ৬:১৫ অপরাহ্ণ
তৌফিকুল ইসলাম

তৌফিকুল ইসলাম: কেউ আদালতে নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার অর্থ হলো সে তার অপরাধকে স্বীকার করেছে। এক্ষেত্রে সে অপরাধী হিসেবে গণ্য হবে কিন্তু ভবিষ্যতে তার এ কর্মের বা অপরাধের কারণে তাকে আর শাস্তি প্রদান করা যাবে না। কিন্তু প্রতারণা করে বা মিথ্যা বলে যদি ক্ষমা আদায় করে তা প্রতারণা হিসেবে বিবেচিত হয়। তার জন্য শাস্তির বিধান আছে।

কতিপয় কেইস ল’ এর অনুসারে উপর্যুক্ত বিষয়টি ব্যাখ্যা করা যাক। Ball v. Commonwealth, 8 Leigh 726, 728 (va. 1837) এর রায়ে বলা হয়েছে বিচারিক ক্ষমা অপরাধীকে তার অপরাধের কারণে হারানো অধিকার ফিরিয়ে দিয়ে তাকে শাস্তি থেকে মুক্তি দেয় কিন্তু তাকে নিরাপরাধ সাব্যস্ত করেনা অথার্ৎ সে অপরাধী হিসেবেই গণ্য হবে কারণ ক্ষমা দ্বারা বেকসুর খালাস বুঝায়না।কিন্তু পার্ডন ফর ইনোসেন্স হলে বেকসুর খালাস বুঝাবে।আদালতে যেসব নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়া হয় তা অপরাধীর অপরাধ মুছে ফেলেনা।

জাস্টিস কোক (Coke) Brown v. Crashaw, 2 Bulst. 154, 80 Eng. Rep.R 1028 (1614) মামলায় বলেন কেউ তার অপরাধের জন্য নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়ে মুক্তি পেলেও সে কোথাও কোন মামলায় সাক্ষী হিসেবে সাক্ষ্য দিতে অযোগ্য বলে বিবেচিত হবে। কারণ আদালত অবমাননাকে crimen falsi হিসেবে দেখা হয় ‘কমন ল’ তে। আদালত অবমাননা এমন একটি অপরাধ যে অপরাধের ক্ষমা করার এখতিয়ার শুধু বিচারবিভাগের আছে আর কারো নেই।

এ রায়ে বলা হয়েছে আদালত অবমাননা শুধু ব্যক্তি বিচারকের বিরুদ্ধে অপরাধ নয় এ অপরাধ পুরা বিচারবিভাগ এবং বিচারবিভাগের অস্তিত্বকে হুমকি করার নামান্তর কারণ আদালত অবমাননার দ্বারা আদালতের উপর জনগনের আস্থা ও বিশ্বাসকে প্রশ্নবিদ্ধ করে।

Roberts v. State, 160 N. Y. 217,221, 54. N.E. 678,679(1899) এ বলা হয়েছে, “A pardon proceeds not upon the theory of innocence, but implies guilt.” নিরাপরাধ পরিগণিত করে ক্ষমা করা হয়না, অপরাধী গণ্য করে ক্ষমা করা হয়।

নিউইয়র্কের কোর্ট অব আপিলস In the matter of……… an attorney, 86.N.Y. 563,569 (1881) মামলায় একজন আইনজীবীকে ক্ষমা করলেও তার আইনজীবীর সনদ বাতিল করেছিলেন কারণ আদালতের যুক্তি হলো তাকে ক্ষমা করলেও তার অপরাধ মুছে যায়নি (it didn’t blot his crime out).

উপর্যুক্ত আলোচনার আলোকে বলা যায় Pardon on unconditional apology doesn’t wipe out the crimes the convict committed (কেউ নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়ে ক্ষমা পেলে তাকে নিরপরাধ বলা যাবেনা, যদিও সে শাস্তি থেকে অব্যাহতি পায় এক্ষেত্রে)। কেউ ক্ষমা পেলেও তার অপরাধ মুছে যাবেনা যদিও শাস্তি আরোপিত হবেনা। চমৎকার বিষয় হলো নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়ে নিজেকে অপরাধী সাব্যস্ত করা হয়, আর মাননীয় আদালত ক্ষমা করলে শুধু শাস্তি থেকে মুক্তি পায়।

তৌফিকুল ইসলাম: সহকারী জজ, সুনামগঞ্জ।