ছয় মামলায় বিএনপির আইন সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সারের আগাম জামিন

প্রতিবেদক : ল'ইয়ার্স ক্লাব বাংলাদেশ
প্রকাশিত: ৮ জানুয়ারি, ২০১৮ ৪:৩৭ অপরাহ্ণ
বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট

পুলিশের কর্তব্যকাজে বাধা দেয়া ও বে-আইনি সমাবেশের অভিযোগে দায়ের করা ছয়টি মামলায় আগাম জামিন পেয়েছেন বিএনপির আইন বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামাল। পুলিশ রিপোর্ট দাখিল না করা পর্যন্ত তার এই আগাম জামিন মঞ্জুর করে আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

এসব মামলায় জামিন আবেদন শুনানি নিয়ে আজ সোমবার (৮ জানুয়ারি) হাইকোর্টের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি কৃষ্ণা দেব নাথের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে বিএনপি নেতা কায়সার কামালের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার ও অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন। সঙ্গে ছিলেন অ্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান আসাদ, অ্যাডভোকেট রুকুনুজ্জামান সুজা, গোলাম আকতার জাকির, কেআর খান পাঠান, ব্যারিস্টার আতিকুর রহমান, মীর হেলাল, এএম আফতাব উদ্দিন ও ফাইয়াজ জিবরান।

প্রসঙ্গত, জিয়া অরফানেজ ও চ্যারিটেবল মামলায় বিচারিক আদালতে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিচার চলছে। আদালতে খালেদা জিয়ার হাজিরা দেয়ার সময় বিএনপির দলীয় নেতাকর্মীরা বিভিন্ন সড়কে অবস্থান নেন। এ সময় শিক্ষাভবন এলাকায় পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ হয়। পরে এ ঘটনায় গত ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে ছয়টি মামলা দায়ের করে পুলিশ। মামলায় কায়সার কামালকে আসামি করা হয়।

সংক্ষিপ্ত শুনানি শেষে হাইকোর্ট কায়সার কামালের জামিন মঞ্জুর করেন। ঘটনা সংঘটনের সময় তিনি বিদেশে অবস্থান করছিলেন মর্মে হাইকোর্টকে অবহিত করেন তার আইনজীবীরা।

পরে ব্যারিস্টার আতিকুর রহমান বলেন, এর আগে নাশকতার অভিযোগে কায়সার কামালের বিরুদ্ধে গতবছরের ডিসেম্বরের ২০,২১ ২৬ তারিখ পৃথক পৃথক তিনটি ২৮ ডিসেম্বর দুটি এবং চলতি বছরের ৩ জানুয়ারির অপর একটি ঘটনাসহ মোট ছয়টি ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়। কিন্তু ওইসময় তিনি থাইল্যান্ডে অবস্থান করছিলেন। তাই তার জামিন চেয়ে আবেদন করা হলে এই ছয় মামলায় পুলিশ রিপোর্ট না দেয়া পর্যন্ত তার জামিন মঞ্জুর করেন হাইকোর্ট।

সুপ্রিমকোর্ট প্রতিনিধি/ল’ইয়ার্স ক্লাব বাংলাদেশ ডটকম