শিশু জিহাদের মৃত্যু : ২০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ায় লিগ্যাল নোটিশ

প্রতিবেদক : ল'ইয়ার্স ক্লাব বাংলাদেশ
প্রকাশিত: ২৩ জানুয়ারি, ২০১৮ ৫:১৬ অপরাহ্ণ

শিশু জিহাদের মৃত্যুর ঘটনায় তার পরিবারকে ২০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হাইকোর্টের নির্দেশ পালন না করায় আদালত অবমাননার অভিযোগ এনে আইনি নোটিশ দেয়া হয়েছে।

জিহাদের পরিবারের পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার মো. আবদুল হালিম রেলওয়ে ও ফায়ার সার্ভিস কর্তৃপক্ষকে এ লিগ্যাল নোটিশ পাঠান। ১৪ দিনের মধ্যে ক্ষতিপূরণের অর্থ না পাওয়া গেলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগে মামলা হবে।

আজ মঙ্গলবার (২৩ জানুয়ারি) নোটিশের বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন আইনজীবী ব্যারিস্টার মো. আব্দুল হালিম।

এর আগে সোমবার জিহাদের পরিবারের পক্ষে বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক মো. আমজাদ হোসেন, ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আলী আহম্মদ খান এবং ফায়ার সার্ভিসের পরিচালক মেজর একেএম শাকিল নেওয়াজকে নোটিশটি পাঠানো হয়।

রাজধানীর শাজাহানপুরে নলকূপের পাইপে পড়ে উদ্ধার তৎপরতায় অবহেলাজনিত কারণে শিশু জিহাদের মৃত্যুর ঘটনায় তার পরিবারকে ২০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে নির্দেশ দেয় হাইকোর্ট। এছাড়া তা ৯০ দিনের মধ্যে বাস্তবায়ন করার জন্য নির্দেশ দিয়েছিল আদালত।

ব্যারিস্টার আব্দুল হালিম বলেন, সোমবার সংশ্লিষ্টদের কাছে ক্ষতিপূরণ চেয়ে নোটিশ পাঠিয়েছি। আদালতের রায়ের পর ৯০ দিনের মধ্যেও ক্ষতিপূরণের টাকা না দেয়ায় এ নোটিশ পাঠানো হয়। ১৪ দিনের মধ্যে ক্ষতিপূরণের অর্থ না পাওয়া গেলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগে হাইকোর্টে মামলা করা হবে।

২০১৪ সালের ২৬ ডিসেম্বর শাহজাহানপুর রেল কলোনিতে একটি খোলা নলকূপের পাইপে পড়ে যায় চার বছরের শিশু জিহাদ। এরপর প্রায় ২৩ ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়েও তাকে উদ্ধারে অপারগতা প্রকাশ করে ফায়ার সার্ভিস। এর কিছু পরেই কয়েকজন তরুণের তৎপরতায় তৈরি করা যন্ত্রে পাইপের নিচ থেকে তুলে এনে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

ওই ঘটনায় চিলড্রেন চ্যারিটি বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আব্দুল হালিম হাইকোর্টে রিট করেন। সেই রিটের প্রাথমিক শুনানিতে রুল জারি করেন আদালত। রুলের চূড়ান্ত শুনানি শেষে ২০১৬ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্টের রায়ে শিশু জিহাদের পরিবারকে ২০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ প্রদানের নির্দেশ দেয়া হয়।

সুপ্রিমকোর্ট প্রতিনিধি/ল’ইয়ার্স ক্লাব বাংলাদেশ ডটকম