বিচারকের ল্যাপটপ ছিনতাই, দুই আসামি ৩ দিনের রিমান্ডে

প্রতিবেদক : ল'ইয়ার্স ক্লাব বাংলাদেশ
প্রকাশিত: ১০ অক্টোবর, ২০২০ ২:৩৮ অপরাহ্ণ
চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট কোর্ট, ঢাকা

ঢাকার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সিনিয়র সহকারী জজ কৃষ্ণ কমল রায়ের ল্যাপটপ ছিনতাই করার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় দুই আসামিকে তিনদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আবু সুফিয়ান মোহাম্মদ নোমান বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) রিমান্ডের আদেশ দেন। রিমান্ডে যাওয়া আসামিরা হলেন রাসেল খান টিটু (২৮) ও মো. রুবেল ওরফে বক্সার (২৫)।

এর আগে গত ৪ অক্টোবর এ দুই আসামিকে মামলাটিতে গ্রেপ্তার দেখানোসহ সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। পরে ওই দিন এ আসামিদের অন্য মামলা থেকে গ্রেপ্তার দেখান ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরী। তিনি রিমান্ড শুনানির জন্য বৃহস্পতিবার দিন ধার্য করেন।

বাদীপক্ষের আইনজীবী শুভ্র সিনহা রায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘বৃহস্পতিবার ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে গ্রেপ্তার দুই আসামিকে হাজির করে সাত দিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন। শুনানিতে আসামিপক্ষে কোনো আইনজীবী ছিলেন না। শুনানি শেষে বিচারক প্রত্যেক আসামিকে তিন দিন করে রিমান্ডে নেওয়ার আদেশ দেন।’

মামলা থেকে জানা যায়, গত ২৩ সেপ্টেম্বর ৯ টায় কল্যাণপুর বাসস্টান্ড থেকে রিকশা যোগে নিজ বাসা সেন্ট্রাল রোডের নিজ বাসায় ফিরছিলেন সিনিয়র সহকারী জজ কৃষ্ণ কমল রায়। রাত ৯টা ২৫ মিনিটের দিকে গণভবন ক্রসিং পার হওয়ার সময় মোটরসাইকেল যোগে দুই অজ্ঞাতনামা আসামি মোটরসাইকেলের গতি কমিয়ে তার সাথে থাকা ল্যাপটপ (এইচপি ব্র্যাণ্ডের) ব্যাগ টান মেরে দ্রুত গতিতে মোটরসাইকেল চালিয়ে আসাদ গেটের দিকে চলে যায়।

এদিকে ছিনতাইকারীরা ব্যাগটি টান দেওয়ার সময় কৃষ্ণ কমল রায় রিকশা থেকে রাস্তায় পড়ে গিয়ে দুই হাঁটু ও হাতে ব্যথা পান। পরবর্তীতে তিনি শেরেবাংলা নগর থানার টহলরত পুলিশ সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মেহেদী ও নজরুল ইসলামকে বিষয়টি অবহিত করেন। এরপর তিনি মামলাটি দায়ের করেন।