মসজিদে চুরি: আসামিকে সরকারি খরচে চিকিৎসার নির্দেশ বিচারকের

প্রতিবেদক : ল'ইয়ার্স ক্লাব বাংলাদেশ
প্রকাশিত: ৩ মার্চ, ২০২২ ১১:০৩ পূর্বাহ্ণ
পঞ্চগড় আদালত

মসজিদের পানির পাম্প চুরির দায়ে ধরা পরা এক আসামির পক্ষে ব্যতিক্রমী এক আদেশ দিলেন আদালত। নিরুপায় হয়ে চুরি করা অসুস্থ ওই আসামিকে সরকারি খরচে চিকিৎসার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

পঞ্চগড়ের অতিরিক্ত চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. মতিউর রহমান সম্প্রতি ব্যতিক্রমী এ আদেশ দেন।

জানা গেছে, মসজিদ থেকে এক হর্সের একটি পানির পাম্প চুরি করার অপরাধে ধরা পড়েন বাবু নামের এক ব্যক্তি। এ ঘটনায় তাকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়। নিয়মানুযায়ী মামলাটি বিচারের জন্য আদালতে আসে।

শুনানিতে আসামি ও বিচারকের কথোপকথন নিম্নরূপ –

শুনানিতে আসামিকে বিচারক জিজ্ঞাসা করলেন, মসজিদে চুরি করলেন কেন?

জবাবে আসামি বলেন, স্যার, মসজিদ হলো আল্লাহর ঘর। মানুষের বাড়িতে চুরি করার চেয়ে আল্লাহর ঘরে চুরি করা উত্তম মনে করেছি।

আসামির উত্তর শুনে গালে হাত দিয়ে কিছুক্ষণ নিশ্চুপ থেকে বিচারক জিজ্ঞাসা করলেন, তো আল্লাহর ঘর থেকে চুরি করলেন কেন?

উত্তরে আসামি বলেন, স্যার আমার অসুখ। কয়েকদিন আগে রংপুর মেডিকেলে নাকের অপারেশন হয়েছে। ১৫ দিন পর ডাক্তার আবার যেতে বলেছে। আমার কাছে কোন টাকা নাই। অনেক ভেবেচিন্তে এই কামটা করছি।

বিচারকের পাল্টা প্রশ্ন, আপনিতো মানুষের কাছে সাহায্য চাইতে পারতেন। আসামির উত্তর, কেউ টাকা দেয় না স্যার। আল্লাহ ছাড়া আমাকে দেখার কেউ নেই।

এরপর বিচারক পর্যবেক্ষণ করলেন আসামির নাকে সত্যি সত্যি অপারেশনের চিহ্ন রয়েছে। অনেক ভেবেচিন্তে আদালত আদেশ দিলেন “চিকিৎসার জন্য আসামিকে সরকারি হাসপাতাল পাঠানো হোক।”

আদালতের সেই আদেশ অনুযায়ী সরকারি খরচে আসামির চিকিৎসা চলছে।