শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি কারাগারে

প্রতিবেদক : ল'ইয়ার্স ক্লাব বাংলাদেশ
প্রকাশিত: ২৭ জুন, ২০২২ ৬:৫৯ অপরাহ্ণ

প্রায় ২৮ বছর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টার ঘটনায় করা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া পিন্টুকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

আজ সোমবার (২৭ জুন) দুপুরে পাবনার অতিরিক্ত দায়রা জজ আদালত-২ এর বিচারক ইসরাত জাহান মুন্নী এ আদেশ দেন।

এর আগে গতকাল রোববার রাতে তাঁকে কক্সবাজারে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব। এরপর সোমবার সকালে পাবনা জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) কার্যালয়ে আনা হয়।

জাকারিয়া পিন্টুর বাড়ি ঈশ্বরদী উপজেলার পিয়ারাখালীর কাচারীপাড়া মহল্লায়।

জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ১৯৯৪ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রূপসা এক্সপ্রেস ট্রেনে খুলনা থেকে সৈয়দপুরে যাচ্ছিলেন। ট্রেনটি ঈশ্বরদীতে পৌঁছালে একটি জনসভা করার কথা ছিল। এর আগেই জাকারিয়া পিন্টুর নেতৃত্বে শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে ট্রেনে গুলি ও বোমাবর্ষণ করা হয়।

ঘটনার দিনই ঈশ্বরদী জিআরপি থানায় একটি মামলা হয়। মামলায় ২০১৯ সালের ৩ জুলাই স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল আদালত জাকারিয়া পিন্টুসহ ৯ জনকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেন। এ ছাড়াও কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা থানার একটি অস্ত্র মামলায় তাঁকে ১৭ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন আদালত।

পুলিশ সূত্রে আরো জানা যায়, জাকারিয়া পিন্টুর বিরুদ্ধে মোট ২৪টি মামলা আছে। এর মধ্যে ৮টি মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা রয়েছে। ২০১৯ সালের ২৩ জুলাই ফাঁসির দণ্ড পাওয়ার আগের দিন শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে ভারতে পালিয়ে যান তিনি। এরপর দেশে ফিরে ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলায় আত্মগোপনে থাকেন।