ঢাকা ওয়াসার কর্মীদের ‘পারফরমেন্স অ্যাওয়ার্ডে’ হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা

প্রতিবেদক : ল'ইয়ার্স ক্লাব বাংলাদেশ
প্রকাশিত: ১৬ আগস্ট, ২০২২ ৪:২৫ অপরাহ্ণ

ঢাকা ওয়াসার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ২০২০-২১ অর্থবছরে (১২ মাস) প্রাপ্য মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থের সাড়ে তিন গুণ প্রণোদনা হিসেবে ‘পারফরম্যান্স অ্যাওয়ার্ড’ দেওয়ার ঘোষণার ওপর নিষেধাজ্ঞাদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

এ সংক্রান্ত এক আবেদনের শুনানি নিয়ে মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার জ্যোর্তিময় বড়ুয়া। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অরবিন্দ কুমার রায় ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল সামসুন নাহার লাইজু।

জানা যায়, ২০২০-২১ অর্থবছরে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তিতে ঢাকা ওয়াসা প্রথম স্থান অর্জন করায় এই বোনাস দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। পারফরম্যান্স বোনাস কীভাবে দেওয়া হবে, সে বিষয়ে একটি নীতিমালা তৈরি করেছে ওয়াসা।

সে অনুযায়ী, ২০২০ সালের ১ জুলাই থেকে ২০২১ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত ঢাকা ওয়াসার বেতনভুক্ত (পে-রোল) যেসব কর্মকর্তা-কর্মচারী ছিলেন, তারা সবাই তিনটি মূল বেতন এবং একটি মূল বেতনের ৫০ শতাংশ বোনাস পাবেন।

এপ্রেক্ষিতে গত ২৫ জানুয়ারি ২৮৬তম সভায় কর্মীদের একটি মূল বেতনের অর্ধেক অন্তর্বর্তীকালীন পারফরম্যান্স বোনাস দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। পরবর্তীতে গত ২৭ এপ্রিল ঢাকা ওয়াসা বোর্ডের ২৯১তম সভায় ‘পারফরম্যান্স অ্যাওয়ার্ড’ (উৎসাহ বোনাস) দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ঢাকা ওয়াসার স্থায়ী, চুক্তিভিত্তিক ও প্রেষণে নিয়োজিত কর্মকর্তা এবং কর্মচারীরা এই বোনাস পাবেন। ‘পারফরম্যান্স অ্যাওয়ার্ড’ হিসেবে প্রণোদনা বাবদ ব্যয় হবে ১৯ কোটি টাকা। কিন্তু সরকারের ভর্তুকিতে চলা ঢাকা ওয়াসার নিয়মিত বেতন-ভাতার বাইরে এমন বোনাস ঘোষণা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। পরে ওই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়।