ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে হলফনামা দিয়ে জবির ধর্মান্তরিত শিক্ষিকার নাম পরিবর্তন

প্রতিবেদক : ল'ইয়ার্স ক্লাব বাংলাদেশ
প্রকাশিত: ২৪ আগস্ট, ২০২২ ১২:১০ অপরাহ্ণ

ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করা জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) লোকপ্রশাসন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রিতু কুন্ডু তার নাম পরিবর্তন করেছেন। তার নতুন নাম রেখেছেন আয়েশা জাহান।

নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে মঙ্গলবার (২৩ আগস্ট) নিজের নাম পরিবর্তন করেন রিতু কুন্ডু। ঢাকা ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টের প্রথম শ্রেণির ম্যাজিস্ট্রেট দেবদাশ চন্দ্র অধিকারী কর্তৃক হলফনামার মাধ্যমে স্বেচ্ছায় তিনি নতুন নাম রাখেন ‘আয়শা জাহান’।

জানা যায়, দীর্ঘ ২৯ বছর কোরআন-হাদিস নিয়ে পড়াশোনা করার পর গত বছরের ১৮ ফেব্রুয়ারি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেওয়া এক ইন্টারভিউতে ইসলাম ধর্ম গ্রহণের কথা প্রকাশ্যে আনেন তিনি। এবার নামও পরিবর্তন করেছেন জবির এই শিক্ষিকা।

নাম পরিবর্তন করা প্রসঙ্গে আয়েশা জাহান (রিতু কুন্ডু) বলেন, আমি ২০১৭ সালেই ধর্ম পরিবর্তন করেছিলাম। আজকে (মঙ্গলবার) ম্যাজিস্ট্রেটের স্বাক্ষরে নতুন নাম গ্রহণ করলাম। সার্টিফিকেট এর নামসমূহে পরিবর্তন করা শুরু করবো।

তিনি আরও বলেন, ইসলাম ধর্মের এই নামটি আমার খুব পছন্দের। আজ থেকে আমি আয়েশা জাহান হিসেবেই পরিচিত হবো।

তার বাড়ি নীলফামারীর সদর উপজেলায়। বাবা দুলাল কান্তি কুন্ডু ও মা মালা কুন্ডুর ঘরে তিনি জন্মগ্রহণ করেন। বর্তমানে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগে কর্মরত আছেন।

আয়শা জাহান (বর্তমান নাম) নীলফামারী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক ও নীলফামারী সরকারি কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক সম্পন্ন করেন। এরপর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের লোকপ্রশাসন বিভাগ থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেন।
২০১৩ সালে তিনি রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগের প্রভাষক হিসেবে নিয়োগ পান এবং ২০১৭ সাল থেকে তিনি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগে শিক্ষকতা করছেন।