সদস্যভুক্তির বয়স অনুপাতে ঋণের অর্থ বরাদ্দ, পাচ্ছেন ৫৪৮৫ আবেদনকারী

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ৩০ এপ্রিল, ২০২০ ৫:০৯ অপরাহ্ণ
এশিয়ার সর্ববৃহৎ বার হিসেবে পরিচিত ঢাকা আইনজীবী সমিতি

করোনা পরিস্থিতিতে আদালত বন্ধ থাকায় বিপাকে পড়া আইনজীবীদের বিনা সুদে ঋণ দেয়ার সিদ্ধান্তের জন্য আজ বৃহস্পতিবার (৩০ এপ্রিল) জরুরি সভায় বসেন ঢাকা আইনজীবী সমিতির কার্যকরী কমিটি।

ঢাকা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ইকবাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় ৭৫১১ টি আবেদনপত্র থেকে যাচাই বাছাইয়ের পর মোট আবেদন ৫৪৮৫ টি গৃহীত হয়।

সংবাদটি ঢাকা আইনজীবী সমিতির অফিস সম্পাদক এইচ এম মাসুম ল’ইয়ার্স ক্লাব বাংলাদেশ ডট কমকে নিশ্চিত করেছেন।

সমিতির সাধারণ সম্পাদক হোসেন আলী খান হাসানের পরিচালনায় সভায় সিদ্ধান্ত হয়-

  • ৫৪৮৫ আবেদনপত্রের মধ্যে ৫ বছরের নিচে আবেদনকারীর সংখ্যা ১৮০০টি, যেখানে প্রত্যেক আবেদনের বিপরীতে ২০ হাজার টাকা ঋণ প্রদান করা হবে।
  • ৫ বছরের উর্ধ্বে আবেদনকারীর সংখ্যা ২৮৯০টি, যেখানে প্রত্যেক আবেদনের বিপরীতে ২৫ হাজার টাকা ঋণ প্রদান করা হবে।
  • ২৫ বছরের উর্ধ্বে আবেদনকারীর সংখ্যা ৩৩৫ টি, যেখানে প্রত্যেক আবেদনের বিপরীতে ৩০ হাজার টাকা ঋণ প্রদান করা হবে।
  • ভেলোবেন্ড ফান্ড যাদের নেই তাদের আবেদন সংখ্যা ৪৬০ টি, যেখানে প্রত্যেক আবেদনের বিপরীতে ১০ হাজার টাকা ঋণ প্রদান করা হবে। এই ঋণ এককালীন হিসেবে ১ বছরের জন্য বিনা সুদে প্রদান করা হইবে।
  • এবং ঋণকৃত অর্থ আবেদনকারীদের ঢাকা আইনজীবী সমিতি ভবন থেকে নগদে গ্রহন করতে হবে এবং উক্ত সময় অবশ্যই ঢাকা আইনজীবী সমিতির আইডি কার্ড নিয়ে আসতে হবে।

ঢাকা আইনজীবী সমিতির অফিস সম্পাদক এইচ এম মাসুম ল’ইয়ার্স ক্লাব বাংলাদেশ ডট কমকে জানান, যাদের আবেদন গৃহীত হয়েছে তাদের তালিকা সমিতির নিজস্ব ওয়েভসাইটে প্রকাশ করা হবে এবং আগামী সপ্তাহ থেকে ঋণ প্রদানের প্রক্রিয়া শুরু হবে।

তিনি আরও জানান, যারা এই মুহূর্তে ঢাকার বাহিরে আছেন, তারা পরে যখন আসবেন তখন সমিতির সাধারণ সম্পাদক বরাবর আবেদন জমা দিয়ে এই অর্থ উত্তোলন করতে পারবেন।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে আদালতপাড়া বন্ধ। এই অবস্থায় বিপাকে পড়া আইনজীবীরা ফেইসবুকে নিজেদের আইডিতে এবং আইনজীবীদের বিভিন্ন গ্রুফে সমিতির নিকট থেকে সহায়তা পেতে বেশ সরব হয়ে উঠেন। সেই পরিস্থিতিতে আইনজীবীদের বিনা সুদে দুই বছর মেয়াদি ঋণ দেয়ার ঘোষণা দেয় ঢাকা আইনজীবী সমিতি। এ ঋণ পেতে তালিকাভুক্ত হওয়ার জন্য ঢাকা বারের ওয়েবসাইটে ২০ এপ্রিলের মধ্যে আইনজীবীদের আবেদন করতে বলা হয়। সর্বশেষ সময় পর্যন্ত অনলাইনে ৭৫১১ টি আবেদনপত্র জমা পড়ে।