‘ভগবান’ নিয়ে কটুক্তি, ঢাবি আইন বিভাগের অধ্যাপকের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ২৭ জুলাই, ২০২১ ১২:৪৯ পূর্বাহ্ণ

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে সনাতন ধর্ম নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্যের অভিযোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক শেখ হাফিজুর রহমান কার্জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। মদ ও দুধ সম্পর্কিত বহুল প্রচলিত একটি কৌতুক ফেসবুকে শেয়ার করার পর তার বিরুদ্ধে এ অভিযোগ আনা হয়।

শনিবার (২৪ জুলাই) রাজধানীর শাহবাগ থানায় তার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তবে এটিকে সাধারণ ডায়েরি হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করে অধিকতর যাচাই-বাছাইয়ের জন্য ডিবির সাইবার ক্রাইম ইউনিটে পাঠানো হয়েছে।

অভিযোগে বলা হয়েছে, গত শুক্রবার (২৩ জুলাই) সনাতন ধর্মের ‘ভগবান’ সম্পর্কে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে কটুক্তিমূলক লেখা পোস্ট করেন অধ্যাপক হাফিজুর। এর মাধ্যমে হিন্দুদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়া হয়েছে বলে লিখিত অভিযোগ বলা হয়েছে।

শেখ হাফিজুর রহমানের বিরুদ্ধে মামলার আর্জিটি করেছেন বাংলাদেশ হিন্দু যুব পরিষদ এর সাধারণ সম্পাদক অমিত ভৌমিক। তিনি বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক শেখ হাফিজুর রহমান কার্জন সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট, ধর্মীয় উগ্রবাদ সৃষ্টি, অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশকে অস্থিতিশীল করার মানসে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতমূলক কুরুচিপূর্ণ পোস্ট করেছেন। তাই তিনি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

এ প্রসঙ্গে হাফিজুর রহমান কার্জন বলেন, আমার পোস্টে যদি কারো ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত লেগে থাকে আমি ক্ষমাপ্রার্থী। ফেসবুকে শেখ হাফিজুর রহমানের স্ট্যাটাসের পর এনিয়ে বিতর্ক শুরু হলে তিনি স্ট্যাটাসটি ফেসবুক থেকে মুছে দেন এবং পরে তার ব্যাখ্যা দিয়ে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন।

এ বিষয়ে শাহবাগ থানার ওসি মওদুদ হাওলাদার জানান, সাইবার ক্রাইম ইউনিটের মতামত সাপেক্ষে এ বিষয়ে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।