ক্লোজআপের ‘কাছে আসার রিকশা’ ক্যাম্পেইন বন্ধে লিগ্যাল নোটিশ

প্রতিবেদক : ল'ইয়ার্স ক্লাব বাংলাদেশ
প্রকাশিত: ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১১:৫৫ পূর্বাহ্ণ

বিশ্ব ভালোবাসা দিবস বা ‘ভ্যালেন্টাইন্স ডে’ (১৪ ফেব্রুয়ারি) উপলক্ষে ক্লোজআপ আয়োজিত ‘কাছে আসার রিকশা’ ক্যাম্পেইন নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেশ সমালোচনা হচ্ছে। এবার এ ক্যাম্পেইন বন্ধ করতে লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হলো।

ইউনিলিভার বাংলাদেশসহ সংশ্লিষ্টদের প্রতি এ লিগ্যাল নোটিশটি পাঠিয়েছেন আওয়ামী ওলামা লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ কাজী মাওলানা মুহম্মদ আবুল হাসান শেখ শরীয়তপুরী।

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মুহাম্মদ রিদওয়ানুল করিম গতকাল রোববার ওলামালীগ নেতার পক্ষে ডাক ও রেজিস্ট্রি যোগে এ লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছেন।

নোটিশ পাঠানোর তথ্য গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করে আইনজীবী অ্যাডভোকেট মুহাম্মদ রিদওয়ানুল করিম বলেন, আগামী ৪৮ ঘণ্টা অর্থাৎ দুইদিনের মধ্যে এ বিষয়ে ইউনিলিভার বাংলাদেশের চেয়ারম্যান অ্যান্ড ম্যানেজিং ডাইরেক্টর, স্বরাষ্ট্র সচিব, তথ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব, পুলিশের মহাপরিচালক (আইজি) এবং ডিএমপি কমিশনারকে জবাব দিতে বলা হয়েছে। উল্লেখিত সময়ের মধ্যে জবাব না দিলে হাইকোর্টে রিট করা হবে।

লিগ্যাল নোটিশে বলা হয়, ক্লোজআপ আয়োজিত ‘কাছে আসার রিকশা’ ক্যাম্পেইনটি অশালীন, অনৈতিক ও বাংলাদেশের আইন পরিপন্হী। ৯০ শতাংশ মুসলমানের দেশে এ ধরনের ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক, অবাধ মেলামেশা, বেহায়াপনা ও অশালীনতাকে উৎসাহিত করা হচ্ছে।

নোটিশে আরও বলা হয়, সাংবিধানিকভাবে বাংলাদেশের রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম। এই ধরনের অশালীন ও অনৈতিক কর্মকাণ্ড ইসলামের সম্পূর্ণ পরিপন্হী এবং সংবিধান অনুযায়ী কোনো মেয়ের পরিবারের সম্মানহানীর মতো কাজ করতে পারে না এ ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে।

আইনজীবী জানান, দণ্ডবিধির ২৯৪ ধারার বিধান অনুযায়ী, প্রকাশ্যে অশালীন কাজ করা নিষিদ্ধ। ডিএমপি অর্ডিন্যান্সের ৭৫ ধারায়ও প্রকাশ্য স্থান, রাস্তাঘাট ইত্যাদি জায়গায় অশালীন কাজ করা শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

তিনি আরও বলেন, নোটিশ পাওয়ার ২ কর্মদিবসের মধ্যে ইউনিলিভার এ ক্যাম্পেইনটি বন্ধ না করলে নোটিশদাতার পক্ষ থেকে আইনগত (মামলা) ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

প্রসঙ্গত, আসন্ন ভালোবাসা দিবসকে কেন্দ্র করে দেশের কিছু পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ফ্রি রিকশা রাইডের একটি ক্যাম্পেইনের আয়োজন করছে ক্লোজআপ। এরমধ্যে রয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ও খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়। গত ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে এই ফ্রি রাইড চালু হয়, চলবে ১৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। এই পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সর্বমোট ২০০ টি রিকশা কাপলদের ভ্রমণের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। এই রিকশাগুলোর নাম দেয়া হয়েছে ‘ক্লোজ আপ কাছে আসার রিকশা।’

ক্লোজআপ ফ্রি রিকশা রাইডে একেবারে বিনামূল্যে ভ্রমণ করতে পারবেন কাপলরা, একই সাথে তাঁদের আনন্দময় সময়টুকু ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করতে পারবেন বলে জানা গেছে। মূলত রিকশা ভ্রমনের মাধ্যমে যুগলদের কাছে আসার গল্প তুলে ধরাই এই ক্যাম্পেইনের লক্ষ্য বলে আয়োজক সূত্র জানিয়েছে।