চাঁদপুরে হত্যা মামলায় পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ড

প্রতিবেদক : ল'ইয়ার্স ক্লাব বাংলাদেশ
প্রকাশিত: ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ৩:৫৫ অপরাহ্ণ
ছবি - প্রতীকী

চাঁদপুরের মতলব উত্তরে মাসুদ রানা নামে এক ব্যক্তিকে হত্যার দায়ে পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তিনজনকে বেকসুর খালাস দেন।

আজ মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১২টার দিকে চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মামুনুর রশিদ এ রায় দেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- মো. ইয়াসিন বেপারী (২৪), মো. আব্দুল খালেক মোল্লা (৩২), মো. ফারুক ওরফে নবী (২৫), মো. সেলিম মাঝী (২২), মো. আলী মুন্সী (২৮)।

রায় ঘোষণাকালে দণ্ডপ্রাপ্ত ৫ আসামির মধ্যে মো. ফারুক ওরফে নবী (২৫) ও মো. আলী মুন্সী(২৮) আদালতে উপস্থিত থাকলেও বাকি ৩ আসামি পলাতক রয়েছেন।

মামলার বিবরণী থেকে জানা যায়, ২০০৮ সালের ৫ অক্টোবর সন্ধ্যায় মাসুদ রানাকে আসামি মো. আলী তাদের বাড়িতে গিয়ে ডেকে নিয়ে আসে। ওই রাতে মাসুদ রানা বাড়িতে না আসায় তাকে স্বজনরা বহু খোঁজাখুঁজি করেও পায়নি। পরে আসামি মো. আলীর কাছে মাসুদের কথা জানতে চাইলে সে জানায়, ইয়াসীন বেপারী, ফারুক ওরফে নবী, মাসুদ রানাসহ আলফু প্রধানের বাড়ির কাছে চা খেয়ে তাদের সেখানে রেখে চলে আসি। মাসুদকে না পেয়ে তার বাবা মো. রবিউল দর্জি (৫০) ২০০৮ সালের ১৪ আগস্ট মতলব উত্তর থানায় একটি জিডি করেন। অবশেষে ১৫ অক্টোবর সকাল সাড়ে ১০টায় মতলব উত্তরের গোয়াল ভাওর একটি ডোবায় কচুরিপানার নিচে মাসুদ রানার মরদেহ পাওয়া যায়। পরে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে।

দীর্ঘ তদন্তের পর তদন্তকারী কর্মকর্তা ২০০৯ সালের ৩০ মার্চ আদালতে আটজনকে অভিযুক্ত করে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ৩৪ জন সাক্ষীর মধ্যে ১৫ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে বিজ্ঞ জজ পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ড ও তিনজনকে বেকসুর খালাস দেন।