ঘুষ নিয়ে বন্দিদের অবৈধ সুযোগ-সুবিধা দেয়ার অভিযোগে ফেনী কারাগারে দুদকের অভিযান

প্রতিবেদক : ল'ইয়ার্স ক্লাব বাংলাদেশ
প্রকাশিত: ৬ জুন, ২০২২ ১০:৫৩ পূর্বাহ্ণ

জেল সুপারের বিরুদ্ধে ঘুষের বিনিময়ে অবৈধভাবে বন্দিদের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা দেওয়ার অভিযোগে ফেনী জেলা কারাগারে অভিযান পরিচালনা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয় নোয়াখালীর সহকারী পরিচালক সুবেল আহমেদের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

ফেনী জেলা কারাগারের কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ টাকার বিনিময়ে অবৈধভাবে বন্দীদের সাক্ষাতের ব্যবস্থা, কারা ক্যান্টিনে খাবারের মূল্য বেশি রাখা, বন্দীদের মোবাইল ফোনে কথা বলার জন্য সরকারি খরচের বাইরে অতিরিক্ত টাকা নেওয়া, কারা হাসপাতালে অসুস্থ রোগীদের ভর্তি না করে টাকার বিনিময়ে সুস্থ রোগীদের ভর্তি করার, বন্দীদের সরকারিভাবে বরাদ্দকৃত খাবার না দিয়ে ভুয়া বিল ভাউচার করে টাকা আত্মসাতসহ ইত্যাদির মাধ্যমে সম্পদ অর্জনের অভিযোগের প্রেক্ষিতে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অভিযান পরিচালনাকালে কারা হাসপাতালে পুলিশের সাবেক এসপি বাবুল আক্তার ও স্বর্ণ ডাকাতি মামলার আসামির ডিবি পুলিশের সাবেক ওসি সাইফুল ইসলামসহ মোট ১১ জনকে চিকিৎসারত পেয়েছে দুদকের এনফোর্সমেন্ট টিম। তবে এসময় সাইফুল ইসলামের কারা হাসপাতালের রেজিস্টারে ভর্তি সংক্রান্ত কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

অন্যান্য অভিযোগের বিষয়ে কারাবন্দিদের সাথে কথা বলে দুদক জানতে পারে, সরকারি নিয়ম মোতাবেক ফি দিয়ে তারা সেবা পাচ্ছেন।

এরপর ভুয়া বিল ভাউচার করে টাকা আত্মসাৎ সংক্রান্তে রেকর্ডপত্র; জেল সুপার ও জেলারের জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের সংক্রান্তে আয়কর নথি এবং সহকারী প্রধান রক্ষী মনির হোসেনের ভুয়া ঠিকানা দিয়ে চাকরি করা সংক্রান্তে অভ্যন্তরীণ তদন্ত প্রতিবেদন চাওয়া হয়েছে। রেকর্ডপত্র পর্যালোচনান্তে বিস্তারিত প্রতিবেদন কমিশনের সিদ্ধান্তের জন্য দাখিল করা হবে।