৬০ জেলায় আইনজীবী ফোরামের কমিটি, ১৪ হাজার সদস্য সংগ্রহ

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ২৭ ডিসেম্বর, ২০২০ ৪:০০ অপরাহ্ণ
জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম

করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণের উদ্ভূত পরিস্থিতির মধ্যেও দেশের ৬০ জেলায় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) -এর সহযোগী সংগঠন জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের কমিটি গঠন করা হয়েছে।

পাশাপাশি এ সময় সংগ্রহ করা হয়েছে প্রায় ১৪ হাজার সদস্য। তবে এখনো সংগঠনটির সুপ্রিম কোর্ট বার, ঢাকা বার এবং ময়মনসিংহ, নরসিংদী, দিনাজপুর ও পঞ্চগড় জেলার কমিটি গঠন বাকি রয়েছে।

আগামী জানুয়ারির মধ্যে দেশের সব জেলায় এবং ইউনিটে কমিটি গঠন সম্পন্ন হবে বলে জানিয়েছেন আইনজীবী ফোরামের আহ্বায়ক প্রবীণ আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন।

খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম অন্য যেকোনো সময়ের চেয়ে সুসংগঠিত। এ জন্য আমাদের (বিএনপির) ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান সরাসরি এ ব্যাপারে আমাদের নির্দেশনা দিয়েছেন।

জ্যেষ্ঠ এই আইনজীবী আরো বলেন, ইনশাআল্লাহ আগামী জানুয়ারির মধ্যে দেশের সব জেলায় এবং ইউনিটে আইনজীবী ফোরামের পূর্ণাঙ্গ কমিটি হবে বলে আশা করছি।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ৩ অক্টোবর প্রবীণ আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেনকে আহ্বায়ক ও অ্যাডভোকেট মো: ফজলুর রহমানকে সদস্যসচিব করে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের ১৭৯ সদস্যবিশিষ্ট কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়।

তার আগে একই বছরের ৩১ জানুয়ারি ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকারকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল আইনজীবী ফোরাম পুনর্গঠনের।আহ্বায়ক কমিটি গঠন হওয়ার পর সদস্য সংগ্রহ অভিযান শুরু হয় এবং দেশের সব বারে বিভাগীয় সমন্বয়কারীর নেতৃত্বে সদস্য ফরম দেয়া হয়।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশনায় মাত্র সাত মাসের মধ্যে ৬০ জেলা বারে সফল সম্মেলনের মাধ্যমে উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচনের মাধ্যমে আইনজীবী ফোরামের কমিটি গঠন করা হয়েছে। আর ময়মনসিংহ, নরসিংদি, দিনাজপুর ও পঞ্চগড় জেলার কমিটি গঠন বাকি রয়েছে।

এতে কোনো বিতর্ক ও হস্তক্ষেপের ঘটনা ঘটেনি বলে আইনজীবী ফোরামের সংশ্লিষ্ট নেতারা জানিয়েছেন। যদিও আহ্বায়ক কমিটি গঠনের সময় ৯০ দিনের মধ্যে সম্মেলনের মাধ্যমে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করার কথা বলা হয়েছিল।

ফোরামের নেতারা জানিয়েছেন, জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের ২০১০ সালে একবার কমিটি গঠন করা হয়। সিনিয়র আইনজীবী ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া ওই কমিটির সভাপতি ও ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন মহাসচিব ও সানাউল্লাহ মিয়া সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব ছিলেন। ২০১৯ সাল পর্যন্ত ওই কমিটি দায়িত্ব পালন করে। বর্তমানে ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া অসুস্থ, আর সানাউল্লাহ মিয়া ইন্তেকাল করেছেন।

এরপর ২০১৯ সালে প্রবীণ আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেনকে আহ্বায়ক করে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের একটি আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়। এই কমিটি শুরু থেকে সারা দেশে সদস্য সংগ্রহ এবং সারা দেশে সদস্যদের নিয়ে একজন যুগ্ম আহ্বায়কের নেতৃত্বে কমিটি গঠন কার্যক্রম শুরু করে।

চট্টগ্রাম বিভাগে সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল এ জে মোহাম্মদ আলীর নেতৃত্বে, বরিশাল ও ফরিদপুরে নিতাই রায় চৌধুরী, ময়মনসিংহ বিভাগে ফোরামের সদস্যসচিব ফজলুর রহমানের নেতৃত্বে ঢাকা বিভাগে ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকনের নেতৃত্বে, কুমিল্লা বিভাগে আইনজীবী মাসুদ আহমেদ তালুকদার, খুলনা, রাজশাহী ও সিলেট বিভাগে যুগ্ম আহ্বায়ক ও বিএনপির আইন সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামাল এবং রংপুর বিভাগে আইনজীবী আবেদ রাজার নেতৃত্বে সদস্যদের অংশগ্রহণে সরাসরি নির্বাচনের মাধ্যমে কমিটি গঠন করা হয়।