ঋণ জালিয়াতি: সোনালী ব্যাংকের সাবেক এমডিসহ ১০ জনের সাজা

প্রতিবেদক : ল'ইয়ার্স ক্লাব বাংলাদেশ
প্রকাশিত: ১২ ডিসেম্বর, ২০২২ ১২:৪৯ অপরাহ্ণ
ফাইল ছবি

ঋণ জালিয়াতির মাধ্যমে সোনালী ব্যাংকের ৫ কোটি টাকা আত্মসাতের দায়ে সোনালী ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক হুমায়ুন কবীরসহ (এমডি) ১০ জনের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫–এর বিচারক ইকবাল হোসেন রোববার (১১ ডিসেম্বর) এই আদেশ দেন।

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) মীর আহমেদ আলী সালাম গণমাধ্যমকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত অপর ৯ আসামি হলেন উপব্যবস্থাপনা পরিচালক (ডিএমডি) মাইনুল হক, মহাব্যবস্থাপক (জিএম) ননী গোপাল নাথ, উপমহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) শেখ আলতাফ হোসেন, সফিজ উদ্দিন আহমেদ, সহকারী মহাব্যবস্থাপক (এজিএম) কামরুল হোসেন খান, নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবদুর মতিন, প্যারাগন নিট কম্পোজিটের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাইফুল ইসলাম (রাজা) ও পরিচালক আবদুল্লাহ আল মামুন এবং মণ্ডল ট্রেডার্সের মালিক মুকুল হোসেন।

আসামিদের মধ্যে মাইনুল হক, শেখ আলতাফ, সফিজ উদ্দিন ও কামরুল কারাগারে আছেন। বাকি ছয়জন পলাতক।

দুদকের পিপি মীর আহমেদ আলী সালাম বলেন, রপ্তানির নামে সোনালী ব্যাংকের ৫ কোটি ২০ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ২০১৩ সালের ১ জানুয়ারি রমনা থানায় মামলা করে দুদক। এই মামলায় সোনালী ব্যাংকের সাবেক এমডি হুমায়ুন কবীরসহ নয়জনের ১৭ বছর কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আর শেখ আলতাফ হোসেনকে আট বছর কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

একই অভিযোগে সাজা হয়েছে আগেও

এর আগে ঋণ জালিয়াতির আরও তিনটি মামলায় হুমায়ুন কবীরসহ নয়জনের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেন আদালত।

গত ২৪ জুলাই ঋণ জালিয়াতির মাধ্যমে সোনালী ব্যাংকের টাকা আত্মসাৎ ও অর্থ পাচারের আরও একটি মামলায় ব্যাংকটির সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ (এমডি) আটজনকে ১৭ বছর করে কারাদণ্ড দেন আদালত।

গত ২৫ মে ঋণ জালিয়াতির মাধ্যমে সোনালী ব্যাংকের টাকা আত্মসাতের দায়ে ব্যাংকটির সাবেক এমডি হুমায়ুন কবীরসহ নয়জনকে ১৭ বছর করে কারাদণ্ড দেন আদালত।

এ ছাড়া ২০২১ সালের ২৬ ডিসেম্বর ঋণ জালিয়াতির মাধ্যমে সোনালী ব্যাংকের ১ কোটি ৪২ লাখ টাকা আত্মসাতের মামলায় হুমায়ুন কবীরসহ ১১ জনের কারাদণ্ড দেন আদালত।