শীতে আসামিদের কষ্ট লাঘবে কাঠগড়ায় কার্পেটের ব্যবস্থা করলেন বিচারক

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ১৪ নভেম্বর, ২০২১ ১২:২৮ অপরাহ্ণ

শীতের অধিকাংশ দিনে বাংলাদেশের সবচেয়ে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকে পঞ্চগড়ে। শীত মৌসুম চলে এসেছে। এজলাসে বিচারকরা জুতা পায়ে উঠেন, আইনজীবীরাও আসেন জুতো পায়ে। আদালতকে সম্মান দেখিয়ে কেবল আসামিরা জুতা খুলে কাঠগড়ায় দাঁড়ান।

আদালতের কাঠগড়ায় সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত অপেক্ষমান জেলখানা হতে আসা আসামিদের শীতে কষ্ট পাওয়ার বিষয়টি বিচারকের হৃদয়কে নাড়া দিয়েছে। তাদের এই কষ্ট দূর করার জন্য মানবিক উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন এক বিচারক।

সংশ্লিষ্ট আদালতসূত্রে জানা গেছে, মামলার নির্ধারিত তারিখে কারাগার থেকে আদালতে আনা হয় আসামিদের, বসিয়ে রাখা হয় কাঠগড়ায়। আদালতকে সম্মান জানাতে আসামিরা জুতা খুলে ওঠেন কাঠগড়ায়। মামলার ডাক না পড়া পর্যন্ত কাঠগড়ার মেঝেতেই বসে থাকতে হয় তাঁদের।

এ ছাড়া জামিনে থাকা আসামিরাও আদালতে আসেন হাজিরা দিতে। শীতের দিনে খালি পায়ে কাঠগড়ার শীতল মেঝেতে থাকা আসামিদের কষ্ট দূর করতে কাঠগড়ায় কার্পেট বিছানোর ব্যবস্থা করেছেন বিচারক।

পঞ্চগড়ের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. মতিউর রহমানের এজলাসে প্রথমবারের মতো এ উদ্যোগ নেওয়া হয়। গত বুধবার তিনি তাঁর এজলাসের কাঠগড়ায় কার্পেট বিছিয়েছেন। তাঁর এমন উদ্যোগের পর পঞ্চগড় চিফ জুডিশিয়াল আদালতের সব কাঠগড়ায় কার্পেট বিছানো হয়েছে।